You are currently viewing Amar Karma Disha 2022 : আমারা কর্ম দিশা প্রকল্পে সত্যি কি চাকরি পাওয়া যাবে  ?
Amar Karma Disha 2022 how to apply online

Amar Karma Disha 2022 : আমারা কর্ম দিশা প্রকল্পে সত্যি কি চাকরি পাওয়া যাবে ?

নিজস্ব প্রতিবেদন : বাংলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রী হয়ে আসার পর তিনি বাংলার মানুষের জন্য বিভিন্ন ধরনের প্রকল্পের শুরু করেছিলেন যেখানে বাংলার মা বোনদের জন্য লক্ষ্মীর ভান্ডার (Laxmi Bhandar) কিংবা বাংলার মানুষের স্বাস্থ্যের কথা ভেবে সাস্থ্য সাথি ( Swasthya Sathi ) প্রকল্প । মমতা বন্দোপাধ্যায় বাংলার উন্নতির জন্য এইবার তিনি রাজ্যে শিল্পের উন্নতির জন্য বিভিন্ন শিল্প কারখানা করার থেকে শুরু করে বেকার যুবক যুবতীদের জন্য চাকরির বেবস্থা নিয়ে বেশ উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন । তিনি বাংলার বেকার কমানোর জন্য যথেষ্ট চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন এবং তাই তিনি একটি প্রকল্প চালু করেছেন যার নাম ( Amar Karma Disha ) আমার কর্ম দিশা ।

আমার কর্ম দিশা ( Amar Karma Disha Scheme 2022 ) সমন্ধে বিস্তারিত জানুন :

প্রকল্পের নাম আমার কর্ম দিশা ( AMAR KARMA DISHA )
প্রকল্প চালুর রাজ্যপশ্চিমবঙ্গ
প্রকল্পের সুবিধা পাবেবেকার যুবক – যুবতি
প্রকল্প চালুর তারিখ জানুয়ারি ২০২২
অফিসিয়াল ওয়েবসাইটhttps://amarkarmadisha.tatastrive.com/
আমার কর্ম দিশা ( Amar Karma Disha Scheme 2022 ) সমন্ধে বিস্তারিত জানুন :

আমার কর্ম দিশা প্রকল্প আসলে কি ? সত্যি কি চাকরি পাওয়া যাবে আমার কর্ম দিশা প্রকল্পে ? | Amar Karma Disha Prakalpa 2022 How to Apply Online

আমার কর্ম দিশা প্রকল্প আসলে বাংলার প্রতিটি বেকার যুবক যুবতীদের একটি কাজের সুযোগ করে দেওয়া এর মূল উদ্দেশ্য। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তিনি এই কর্ম দিশা প্রকল্প শুরু করার সময় বলেছিলেন এই প্রকল্পের মাধ্যমে বাংলায় প্রায় 10 হাজার বেকার যুবক যুবতীদের দুয়ারে সরকারের মাধ্যমে চাকরির ব্যবস্থা করে দেবে। এই প্রকল্পটি চালু করার আরেকটি কারণ হলো, এর মাধ্যমে বাংলায় প্রতিটি বেকার যুবক যুবতীদের কারিগরি শিক্ষার ব্যবস্থা করে দেবে রাজ্য সরকার। প্রকল্পটির সূচনা যদিও এই বছর জানুয়ারি মাসে হওয়ার কথা ছিল কিন্তু করোনাভাইরাস এর জন্য তা আর হয়ে ওঠেনি। মনে করা হচ্ছে এই প্রকল্পটি পরবর্তী দুয়ারে সরকার এ চাকরির বেবস্থা করে দেবে বাংলার ঘরে ঘরে।
রাজ্যে এই প্রকল্পে চাকরির বেবস্থা করা হলেও সেটা কি সত্যি বাংলার এত যুবক যুবতীকে একটি স্থায়ী চাকরির ব্যাবস্থা করতে পারবে সে নিয়েও রয়েছে একটি দারুন মতভেদ। সূত্র মতে এই কর্ম দিশা প্রকল্পে আপনি সরকারি চাকরি পাবেন না এখানে মূলত প্রাইভেট অথবা অস্থায়ী চাকরির বেবস্থা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে । আপনি যদি এই প্রকল্পে চাকরির জন্য এখন পর্যন্ত আবেদন না করে থাকেন তাহলে অবশ্যই এই মুহূর্তে আবেদন ( আবেদন করতে এখানে ক্লিক করুন ) করতে পারেন । আপনি আবেদন করতে পারেন তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট অথবা মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করে । বাংলায় বেকার সংকট কাটাতে এই প্রকল্প কতটা কার্যকরী সেটা পরেই বোঝা যাবে।

অন্যান্য খবর গুলি দেখুন :

সবার সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply