You are currently viewing ‘কৃষক বন্ধু’ দের দেওয়া হবে ২০৬০ টাকা ! | Krishak Bandhu Latest Update 2022

‘কৃষক বন্ধু’ দের দেওয়া হবে ২০৬০ টাকা ! | Krishak Bandhu Latest Update 2022

আজকে আমরা আপনাদের জানাতে চলেছি আরও একটি নতুন কৃষক বন্ধু ( Krishak Bandhu ) প্রকল্পের আপডেট । আপনি যদি কৃষক বন্ধু প্রকল্পের আওতায় থেকে থাকেন তাহলে আপনি খুব সহজেই সর্বনিম্ন ২০৬০ টাকা পেয়ে যেতে পারবেন। কিভাবে আপনি এই কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদন করবেন তা আমরা এই আগেই আলোচনা করেছি । আপনি যদি এখনো পর্যন্ত কৃষক বন্ধু প্রকল্পে ( Krishak Bandhu  Scheme ) নিজের নাম নতিভুক্ত না করিয়ে থাকেন তাহলে আপনার কাছে সুযোগ রয়েছে আপনি চাইলে আজকেই কৃষক বন্ধু তে আবেদন করতে পারবেন ।

প্রকল্পের নাম কৃষক বন্ধু ( Krishak Bandhu )
রাজ্যর নামপ্রশ্চিমবঙ্গ
প্রকল্পের সূচনা তারিখ১লা জুন ২০১৯
প্রকল্পের শেষ তারিখচলছে
অফিসিয়াল ওয়েবসাইটhttp://krishakbandhu.net/

‘কৃষক বন্ধু’ প্রকল্প আসলে কি ? | What is Krishak Bandhu  Scheme ?

কৃষক বন্ধু প্রকল্প বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় বাংলার সকল ছোটো বড়ো চাষিকে যে কোন ধরনের চাষের ক্ষতিতে তাদের পাশে থাকার আশ্বাস দেন । এই ‘কৃষক বন্ধু’ প্রকল্প হল যদি কোন কারনে চাষির ক্ষতি হয় তাহলে সরকার সেই ক্ষতিপূরণ বহন করবেন ।

কৃষক বন্ধু টাকা ঢুকেছে কিনা কিভাবে যানবেন ?

আপনি যদি ইতিমধ্যে যদি কৃষক বন্ধু প্রকল্পে আবেদন করে থাকেন অথচ একবারের জন্য টাকা না পেয়ে থাকেন কিংবা আগে পেয়েছেন তবে এখন পাননা তাহলে আপনার চিন্তার কারণ নেই । আজকে আমরা আপনাদের জানিয়ে দেব আপনি কিভাবে আপনার আবেদনের স্ট্যাটাস চেক ( krishak bandhu status checking ) করতে পারেন । আপনি যখন আবেদন করেছিলেন তখন আপনাকে একটা নম্বর দেওয়া হয়েছিল সেই নম্বর টি দিয়ে স্ট্যাটাস চেক ( krishak bandhu status ) করতে পারেন অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। বিশদে জানতে এখানে ক্লিক করে দেখুন কেন আপনার কৃষক বন্ধুর টাকা কেন ঢুকছেনা

Krishak Bandhu
Krishak Bandhu Latest Update 2022

‘কৃষক বন্ধু’ র ২০৬০ টাকা কিভাবে আপনি পাবেন ! | Krishak Bandhu  Latest Update 2022

এই উৎসব শেষেই শুরু হবে খারিফ মরশুমে সরাসরি সরকারি উদ্যোগে ধান ক্রয় করা । কৃষকরা সরাসরি ধান ক্রয় কেন্দ্রে গিয়ে নিজেদের ধান বিক্রি করতে পারবেন।তবে এই ধান বিক্রয় করার জন্য প্রথমে কৃষককে অনলাইনে ধান বিক্রয়ের স্লট বুক করাতে হবে।রাজ্যর তরফ থেকে কৃষকদের ( Krishak Bandhu  Latest Update 2022 ) হয়রানি দূরীকরণের জন্য গত মরশুম থেকেই এই প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল।

অনলাইনে স্লট বুকিং প্রক্রিয়া শুরু হবে ১৫ অক্টোবর থেকে। মনে রাখতে হবে এই স্লট বুকিং সেই সমস্ত কৃষক ( Krishak Bandhu  Latest Update 2022 ) করতে পারবেন যারা ইতিমধেই সরকারি কৃষক বন্ধু প্রকল্পের আওয়তায় আছেন।নতুন যদি কোন কৃষক এইবার নাম নথিভুক্ত করতে চান তাহলে তাহলেও তারাও নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন। নতুন নাম নথিভুক্তিকরণ শুরু হবে ১৭ অক্টোবর থেকে।বুকিং না করেও আপনি এইবার ধান বিক্রি করতে পারবেন সরকারের কাছে তবে এই ক্ষেত্রে সময় থাকবে সীমিত।

এখানে চাইলেই সুলভ দামে ধান বিক্রি করতে পারবেন ( Krishak Bandhu  Latest Update 2022 ) এবং আপনি যদি এখানে ধান বিক্রি করেন তাহলে সর্বনিম্ন কুইন্টাল প্রতি ধানের দাম পেয়ে যাবেন ২০৬০ টাকা। তবে মনে রাখবেন বিভিন্ন ধানের দাম বিভিন্ন হতে পারে। আপনার ধানের মানের উপর নির্ভর করবে ধানের দাম।

আরও পড়ুন

সবার সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply