You are currently viewing পশ্চিমবঙ্গ কো-অপারেটিভ সার্ভিস কমিশন কি? West Bengal Co Operative Service Commission Details 2022

পশ্চিমবঙ্গ কো-অপারেটিভ সার্ভিস কমিশন কি? West Bengal Co Operative Service Commission Details 2022

  • Post author:

নিজস্ব প্রতিবেদন: ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্ক (WBSTCB) দপ্তরের অপর আরেকটি নামই হল ওয়েস্ট বেঙ্গল কো-অপারেটিভ সার্ভিস কমিশন ( West Bengal co operative service commission )। যেটি কলকাতা শহরে অবস্থিত একটি ভারতীয় প্রাদেশিক সমবায় ব্যাঙ্ক। এর কার্যক্রমের প্রাথমিক কিছু ক্ষেত্র আছে, যেমন- কৃষি ঋণ প্রদান করা, জেলা সমবায় ব্যাঙ্ক এবং অন্যান্য সমবায় সমিতিগুলিকে সঠিকভাবে নিয়ন্ত্রণ করা বা পরিচালনা করা। সরকারি এই কো-অপারেটিভ দপ্তরে লকারের সুবিধা, ব্যাঙ্ক গ্যারান্টি, বিল, ক্রেডিট লেটার, ইন্স্যুরেন্স, আনুষঙ্গিক পরিষেবা, আমানত স্কিম এবং লোন স্কিম সহ সেক্টরের বিভিন্ন পরিষেবা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এই পশ্চিমবঙ্গ কো-অপারেটিভ সার্ভিস দপ্তর এর ব্যাপারে আরও বিস্তারিত তথ্য নিচে দেওয়া হল:

West Bengal Co Operative Service Commission -এ কোন কোন পদে নিয়োগ করা হয়? এদের কাজকর্ম কি ধরনের করতে হয় ? বার্ষিক বেতন কত দেওয়া হয়? পদোন্নতি কিভাবে হয়? কোন কোন সুবিধা দেওয়া হয়? এবং নিয়োগের পদ্ধতি কি রকম? west bengal co-operative service commission

নিয়োগের পদ্ধতি: কোন প্রার্থীকে এই ওয়েস্টবেঙ্গল কো-অপারেটিভ সার্ভিস কমিশনে চাকরি পাওয়ার জন্য, তাকে অবশ্যই নির্বাচন প্রক্রিয়ার তিনটি ধাপ অতিক্রম করতে হবে, নির্বাচন প্রক্রিয়া গুলি হল যথাক্রমে ১. প্রথম ধাপে দুটি অনলাইন এক্সাম হয় ২. দ্বিতীয় ধাপে একটি মৌখিক এক্সাম নেওয়া হয় ৩. এবং তৃতীয় ধাপে অর্থাৎ নির্বাচন প্রক্রিয়ার শেষ ধাপে ডকুমেন্ট ভেরিফিকেশনের জন্য ডাকা হয়।

নিযুক্ত পদগুলির নাম এবং কাজের ধরন:

নিযুক্ত পদ: অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার
কাজের ধরন: অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার পুরো সমগ্র বিভাগের সামগ্রিক বৃদ্ধি এবং মসৃণ কার্যকারিতার কাজে দায়বদ্ধ থাকবে।

নিযুক্ত পদ: ম্যানেজার
কাজের ধরন: ম্যানেজারের কাজ অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজারের থেকে সম্পূর্ণ আলাদা ধরনের। ম্যানেজার একটি সম্পূর্ণ আলাদা বিভাগে নিযুক্ত থাকে। যেখানে সে প্রতিদিনের কাজের বরাদ্দ এবং তাদের অগ্রগতির জন্য তাদের সুপারভাইজারদের সহায়তা করবে এবং গাইড করবে।

নিযুক্ত পদ: ডেপুটি ম্যানেজার (একাউন্ট)
কাজের ধরন: বিভাগের হিসাব রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব এই ডেপুটি ম্যানেজারের থাকবে। তাছাড়া নিরীক্ষা প্রক্রিয়ার উপরও তার নজর থাকতে হবে।

নিযুক্ত পদ: অ্যাসিস্ট্যান্ট কাম সুপারভাইজার
কাজের ধরন: এই অ্যাসিস্ট্যান্ট কাম সুপারভাইজারের অফিসের প্রাথমিক কার্যাবলী, অফিস স্টেশনারি রক্ষণাবেক্ষণ করার কাজে দায়বদ্ধ থাকবে।

নিযুক্ত পদ: স্টাফ অফিসার ক্যাডার
কাজের ধরন: কেরানি এবং অফিসের অন্যান্য কর্মীরা তাদের দৈনন্দিন কাজ এবং মাসিক লক্ষ্যগুলি সম্পূর্ণ করতে পারছে কিনা তা তত্ত্বাবধানের দায়িত্ব স্টাফ অফিসার ক্যাডারের।

নিযুক্ত পদ: ক্লারিক্যাল ক্যাডার
কাজের ধরন: ফাইল রক্ষণাবেক্ষণ করা, রেকর্ড সংরক্ষিত রাখা ইত্যাদির কাজের দায়িত্ব ক্লারিক্যাল ক্যাডারের থাকবে।

কর্মজীবন বৃদ্ধি এবং পদোন্নতি:
এই ওয়েস্ট বেঙ্গল কো-অপারেটিভ সার্ভিস কমিশনে যদি প্রার্থীর সিলেকশন হয়ে যায় তাহলে প্রার্থীর নিশ্চিত একটি কর্মজীবন রয়েছে বা কেরিয়ার রয়েছে, কারণ এই চাকরিটি একটি সরকারি উদ্যোগ।এটি তাদের জীবনযাত্রার মান উন্নত করতে সাহায্য করে। প্রার্থী একবার তাদের শিক্ষানবিশকাল(probation period) অতিক্রম করলে, তারা সমস্ত অতিরিক্ত সুবিধা এবং পদোন্নতি ভোগ করবে। এই শিক্ষানবিশকাল সম্ভবত ২ বছরের হয়। বিভাগে তাদের পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে প্রার্থীদের অতিরিক্ত প্রণোদনাও দেওয়া হয়। তাই এই চাকরিতে প্রার্থীর কর্মজীবনও বৃদ্ধি পাবে এবং প্রার্থীর ভালো কাজের জন্য প্রার্থী পদোন্নতিও পেতে পারে। এবং প্রার্থীদের জন্য নিয়মিত প্রশিক্ষণ সেশন আছে; এটি প্রার্থীর অভিজ্ঞতা এবং জ্ঞান বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে।

বার্ষিক বেতন: ওয়েস্ট বেঙ্গল কোঅপারেটিভ সার্ভিস কমিশনের পদের জন্য নির্বাচিত প্রার্থীকে বার্ষিক ৩ লক্ষ থেকে ৮ লক্ষ টাকার বেতন ব্যান্ড কমিশনের মধ্যে ভর্তি করা হবে। নিচে বার্ষিক বেতন এর চার্টটি প্রকাশ করা হলো:-

পদের নাম বার্ষিক বেতন
অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার৮ লক্ষ টাকা
ম্যানেজার৬ লক্ষ টাকা
ডেপুটি ম্যানেজার (একাউন্ট)৭.২ লক্ষ টাকা
অ্যাসিস্ট্যান্ট কাম সুপারভাইজার৩ লক্ষ টাকা
স্টাফ অফিসার ক্যাডার৬.৬ লক্ষ টাকা
ক্লারিক্যাল ক্যাডার৪ লক্ষ টাকা
west bengal co-operative service commission

এছাড়া অতিরিক্ত যেসব ভাতাগুলি নির্বাচিত প্রার্থীদের দেওয়া হয় সেগুলি হল:-
মহার্ঘ ভাতা
বাড়ি ভাড়া ভাতা
অতিরিক্ত সময়ের উপর ভাতা
জ্বালানী খরচ

এছাড়া নির্বাচিত প্রার্থীদের in hand salary বা ইন-হ্যান্ড বেতন ট্যাক্স কাটার পর এবং অন্যান্য কর্তন বাদ দেওয়ার পর 7th pay commission -এর দ্বারা মাসিক মে বেতন প্রার্থীদের দেওয়া হয় তার চার্টটি নিচে দেওয়া হল:-

পদের নাম‌ মাসিকবেতন(in-hand)
অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার৫৮৪২৮/-
ম্যানেজার৪৩৯১৫/-
ডেপুটি ম্যানেজার (একাউন্ট)৫৭০০৫/-
অ্যাসিস্ট্যান্ট কাম সুপারভাইজার২১৮৫৯/-
স্টাফ অফিসার ক্যাডার৭০৫২.১৪/-( *CCA এলাকার জন্য )
ক্লারিক্যাল ক্যাডার২৬৫১৩.৮৩/-
বার্ষিক বেতন কত দেওয়া হয়? পদোন্নতি কিভাবে হয়? কোন কোন সুবিধা দেওয়া হয়? এবং নিয়োগের পদ্ধতি কি রকম?

*এখানে CCA বা City compensatory allowance Area -এর অর্থ হলো মেট্রোপলিটন Area, যেমন- হাওড়া, কলকাতা।
আর Non CCA বা Non City compensatory allowance Area -এর অর্থ হলো যেই শহরগুলি মেট্রোপলিটন Area নয়, যেমন-শিলিগুড়ি,কোন্নগর চুঁচুড়া আলিপুরদুয়ার ইত্যাদি। অর্থাৎ Non CCA Area-তে নির্বাচিত প্রার্থীকে CCA Area-এর তুলনায় কিছু স্যালারি কম দেওয়া হয়।

West Bengal Co Operative service Commission -এ নির্বাচিত প্রার্থীদের অতিরিক্ত ভাতার সাথে সাথে আরো কিছু অতিরিক্ত সুযোগ-সুবিধা প্রদান করা হয় সেগুলি হল:-

সবেতন ছুটি
সরকারি বাসস্থান
বৃদ্ধি এবং প্রণোদনা
চাকরির প্রশিক্ষণ
চিকিৎসা সুবিধা
পেশাদারী উন্নয়ন
স্বাস্থ্য বীমা
বোনাস বা অধিবৃত্তি
পর্যাপ্ত পৈতৃক এবং মাতৃকালীন ছুটি
পরিবহন সুবিধা

তাই যে সমস্ত সরকারি চাকরি প্রার্থীরা বেঙ্গল কো-অপারেটিভ সার্ভিস কমিশনে চাকরি করতে চান তাহলে আপনারা অবশ্যই এই চাকরীর বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হলে এটিতে আবেদন করবেন। যেমন করে আমরা এই চাকরির জব প্রোফাইল সম্বন্ধে আমরা উপরে বিবরণ করেছি, এই চাকরিটিতে ভালো সুযোগ সুবিধা রয়েছে। এবং বলে দেওয়া যাক এই চাকরিতে আবেদনের পদ্ধতি এবং এর সিলেবাস কী আছে তা জানা যাবে যখন এই চাকরিটির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হবে সেখান থেকেই আপনারা এইসব সম্বন্ধে জেনে নিতে পারবেন।

West Bengal Co Operative service Commission
West Bengal Co Operative service Commission

আরও পড়ুন :

সবার সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply